আউটসোর্সিং করে মাসে ৮০০০/- টাকা থেকে ৮০,০০০/- ইনকাম করুন

আউটসোর্সিং করে মাসে ৮০০০/- টাকা থেকে ৮০,০০০/- ইনকাম করুন

CPA মার্কেটিং কি? নতুনদের জন্য সি. পি. এ মার্কেটিং এর নির্দেশনা

সি. পি. এ. (CPA) মার্কেটিং হল এমন এক ধরনের অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং যার মাধ্যমে আপনি কোন পণ্য বিক্রি এর পাশাপাশি ছোট কিছু কাজ যেমন ইমেইল সাবমিট , জিপ কোড সাবমিট, ডাউনলোড ইত্যাদি কাজের মাধ্যমে ইনকাম করতে পারেন। এজন্যই একে বলা হয়ে থাকে কস্ট পার অ্যাকশন তার মানে যে কোন অ্যাকশন ফুলফিল হলেই আপনি কমিশন পাবেন। আপনারা সবাই হয়তো জানেন Amazon অথবা Clickbank এর প্রোডাক্ট প্রমোট করে রেভিনিউ শেয়ারের মাধ্যমে টাকা ইনকাম করা যায় । কিন্তু সি. পি. এ. মার্কেটিং তার থেকে অনেক সহজ এবং কাজও অনেক কম।

সি. পি. এ. মার্কেটিং আসলে কি?

আপনারা অনেকেই হয়তো ভালোভাবে জানেন না অ্যাকশন কি জিনিস। তাদের জন্য আবারো বলছি কোন অফার কেনা, গেম অথবা কোনকিছু ডাউনলোড করা, কোন রোমান্টিক সাইটে সাইন আপ করা, অনলাইনে কোন গেম এর জন্য অ্যাকাউন্ট খোলা, ইমেইল আইডি দেয়া, সাবস্ক্রাইব করা এমনকি কোন সাইটে নিজের পোস্ট কোড দেয়াও এক একটা অ্যাকশন।

আরো সহজ ভাবে বলি – ধরুন আমার একটি রেস্টুরেন্ট আছে । আমি কিছু লোক খুঁজছি যারা আমার রেস্টুরেন্ট এর মার্কেটিং করবে। তাদের সাথে আমার কন্ট্রাক্ট আপনার মাধ্যমে যদি আমার দোকানে কেউ আসে অথবা প্রোডাক্ট কিনে থাকে তাহলে আপনাকে প্রতি কাস্টমার বা বিক্রি থেকে একটা কমিশন দেবো। যখন আপনি একজন কাস্টমার আমার রেস্টুরেন্টে নিয়ে আসলেন এই কাস্টমার নিয়ে আসাই হচ্ছে একটা একশন। আশা করি বুঝতে পেরেছেন। আর বিস্তারিত জানতে দেখুন সি.পি.এ মার্কেটিং কেন করবেন?

এই সব কিছুকে খুব সহজ ভাষায় বলতে গেলে যেটা দাঁড়ায় সেটা হল বিভিন্ন বড় বড় কোম্পানি তাদের সাইটে এই লিড গুলো নিয়ে দিলে আপনাকে কমিশন বা এক কথায় টাকা দেবে। এখানে সব থেকে সুবিধা টা হল টাকা পাবার জন্য তাদের কোন কিছু বিক্রির দরকার নেই, আপনি শুধু ট্রাফিক বাড়িয়ে দিতে পারলেই হবে। ওদিকে কোম্পানিরও কিন্তু লাভ আছে কারন তাদের নিজস্ব কিছু লিড মনেটাইজ করার কৌশল আছে যার মাধ্যমে যখন কেউ পেইড মেম্বার / সদস্য হয় অথবা কোন লিডের উন্নতি হয় তখন তারা ১০০% কমিশন নিয়ে নেয়।

সিপিএ মার্কেটিং কেন শিখবেন ?

কারন এক মাত্র সিপিএ মার্কেটিং থেকে আপনি ইনকাম করতে পারবেন কোন রকম ঝামেলা ছাড়াই ।
সিপিএ মার্কেটিং করা মানে কারো অধীনে চাকুরী করা না । এটা পুরটাই আপনার নিজের বিজনেস , যেখানে আপনি অন্য দের চাকুরী তে নিয়োগ দিতে পারবেন !
মদ্য কথা আপনি সিপিএ মার্কেটিং শিখে একটি সিপিএ ফার্ম ও দিতে পারবেন ।
বিভিন্ন মার্কেট প্লেস এ কাজ খোজার থেকে নিজের বিজনেস করা অনেক শ্রেয় ।

CPA মার্কেটিং এর কিছু শব্দ পরিচিতি

Advertiser: এটা হল সেই সাইট বা ব্যক্তি যারা CPA নেটওয়ার্ক এর মাধ্যমে প্রোডাক্ট বা সার্ভিসের বিজ্ঞাপণ দিয়ে থাকে। হতে পারে সে রিটেইলার, অনলাইন রিটেইলার অথবা মার্চেন্ট।

Publisher: এটা হল সেই ব্যাক্তি বা সাইট যারা কমিশনের জন্য কোন প্রোডাক্ট বা সার্ভিস প্রোমোট করে থাকে। সহজ কথায় এক্ষত্রে আপনি, আমিই সেই পাবলিশার।

PPL (Pay-Per-Lead): সহজ ভাষায় আপনাকে প্রতিটা লিড এর জন্য পে করা হবে।ধরুন- আপনি কোন এডভার্টাইজার এর প্রোডাক্টের বিজ্ঞাপণ আপনার সাইটে ব্যানার হিসাবে রাখলেন। পরবর্তিতে আপনার সাইট থেকে ১০ জন ভিজিটর ঐ বিজ্ঞাপণে ক্লিক করে এডভাটাইজারের সাইটে গেল। এর মধ্যে ধরি ১ জন নাম ও ইমেল এড্রেস দিয়েএকটি ফর্ম পুরন করল। তার মানে আপনি ১টি লিড পেয়ে গেলেন এবং আপনাকে এই ১টিলিডের জন্য পে করা হবে।(এক্ষেত্রে প্রোডাক্ট বা সার্ভিস সেল করা আবশ্যিক নয়, শুধুমাত্র রেজিষ্টেশন নয় ফরম পুরনের জন্য আপনাকে পে করা হবে).

PPC (Pay-Per-Click): এটা হল সেই কমিশন বা নিদিষ্ট টাকা যা পাবলিশারকে পে করা হয়ে থাকে তার সাইটে থাকা প্রোডাক্টের ব্যানার বা লিঙ্কে প্রতিটা ক্লিকের জন্য। উদাহরন হিসাবে গুগল এডসেন্স এর কথা বলা যেতে পারে।

কোন ধরনের ব্যক্তি সিপিএ মার্কেটিং শিখতে পারবেন ?

১। ইন্টারনেট সম্পর্কে যার নুন্যতম জ্ঞান রয়েছে
২। যিনি অনলাইন থেকে আয় করতে ইচ্ছুক
৩। যিনি কম্পিউটার এ ৩ থেকে ৪ ঘন্টা সময় দিতে পারবেন

অ্যাফিলিয়েট অথবা সিপিএ (CPA) মার্কেটিং শেখার জন্য ১ বছর অথবা ৬ মাস এর কোন ডিগ্রী ভিত্তিক কোর্স এর দরকার নেই । ভালো কোন আইটি ফার্ম থেকে ২ বা ৩ মাসের কোর্স এ যথেস্ট !

(CPA) মার্কেটিং করার জন্য কি কি দরকার ?

ওয়েব সাইট – (CPA) মার্কেটিং করার জন্য আপনার একটি ওয়েব সাইট থাকতে হবে ! এই কথাটি শুনেই হইত অনেকেই হতাশ হবেন ! কিন্তু হতাশ হবার কিছু নেই । শুধু মাত্র একটি ব্লগ সাইট খুলেও আপনি (CPA) মার্কেটিং করতে পারবেন । অথবা কোন ওয়েব সাইট এর সাব ডোমেইন (যা কিনা একদম ফ্রী তে খোলা যায় ) দিয়ে আপনি (CPA) মার্কেটিং করতে পারেন !

সিপিএ (CPA) শিখতে কতদিন লাগে?

উওর: সিপিএ (CPA) একটা বিজনেস।এখানে মার্কেটিং ম্যাথড শিখতে আপনার দুই থেকে তিন মাস সময় লাগতে পারে।

সিপিএ (CPA) থেকে মাসে কত টাকা ইনকাম করা যাবে?

উওর: এটা নির্ভর করবে আপনি কত ইনকাম করতে চান তার টার্গেট এর উপর। আপনার ইনকাম টার্গেট যতবেশী হবে আপনার বিনিয়োগ বাড়াতে হবে। তবে আপনি বিনিয়োগ ছারাও ইনকাম করতে পারবেন । আপনার ইচ্ছা এবং পরিশ্রম থাকলে আপনি দিনে গড়ে ২০ থেকে ২০০ ডলার ইনকাম করতে পারবেন । এখন মাসিক টা আপনি নিজেই হিসাব করে নিন 🙂

সিপিএ (CPA) মার্কেটপ্লেস থেকে টাকা তুলার মাধ্যম কি?

উত্তরঃ ৩০দিনপর, ১৫দিন পর, ৭দিনপর।বিভিন্ন মার্কেটে বিভিন্ন নিয়ম থাকে। যেমন maxbounty প্রথম পেমেন্ট ৩০ দিন পর, এরপর ৭দিন পর পর আপনি পেমেন্ট তুলতে পারবেন।

সিপিএ (CPA)মার্কেট থেকে পেমেন্ট কিভাবে পাওয়া যায়?

উওর: সিপিএ (CPA) মার্কেট প্লেস আপনার সাধারনত তিন ধরনের পেমেন্ট থাকে। আপনি চেক Check, পেপাল PayPal, পাইনিয়ার কার্ড Pre-paid Master Card by Payoneer or ব্যাংক ট্রান্সফার Electronic Funds Transfer এর মাধ্যমে টাকা তুলতে পারবেন।

সিপিএ (CPA) আমি কোন বিনিয়োগ না করে ইনকাম করতে পারব?

উওর: হা আপনার ভাল ফ্রি ট্রাফিক থাকলে ইনকাম করতে পারবেন। এক্ষেত্রে আপনাকে বেশী প্ররিশম করতে হবে।

আমাদের স্টুডেন্টদের সফলতার গল্প

আমাদের স্টুডেন্টদের  ইনকাম করার স্ক্রীন শর্টঃ