গুগল এর ব্যবহার যা আপনি জানেন না – ১ম পর্ব

গুগল এর ব্যবহার যা আপনি জানেন না – ১ম পর্ব

আমার মনে হয় ১০০ জন মানুষকে যদি বলা হয় চোখ বন্ধ করে প্রজুক্তি নিয়ে কোন কিছু চিন্তা করতে তার মধ্যে ১০০ জনই চোখ বন্ধ করার সাথে সাথে গুগল এর লোগোটা দেখতে পাবে। মানুষের পথচলাকে গুগল এতোটাই সহজ করে দিয়েছে এবং দিচ্ছে যে এমন একজন মানুষ খুজে পাওয়া মুশকিল যে প্রজুক্তি ভালোবাসে কিন্তু গুগলকে ভালোবাসে না। আমি শুধু গুগল এর সার্চ ইঞ্জিনের কথা বলতে চাইনা যদিও শুধু এই বিষয়টা বলেই শেষ করা যাবে না। তবে এর বাইরে গুগল এর অনেক সেবা আছে যা প্রায় সার্চ ইঞ্জিনের সমানভাবে জনপ্রিয় বা একই গতিতে জনপ্রিয় হচ্ছে।

গুগলের এমন অনেক কাজও আছে যা প্রথম দিকে সাধারনের কাছে নিছক পাগলামি মনে হয়েছিল কিন্তু এখন সেই সেবাটা ব্যাবহার না করে মানুষ চলতে পারে না। এমনকি এখনো গুগল অনেক বিষয় নিয়ে কাজ করছে যা এই মুহূর্তে বেশিরভাগ মানুষের কাছে পাগলামি ছাড়া কিছু নয়।

যাক, আমাদের আজকের এই আলোচনার মূল বিষয় গুগল এর বিভিন্ন সেবার এমন কিছু ব্যবহার যেইগুলো অনেক বড় মাপের ইন্টারনেট ব্যবহারকারীও জানেন না। এই ধরনের বিষয় জেনে আপনি সহজেই হতে পারেন একজন গুগলি। আর এই গুগলিনেস আপনার কাজে দেবে যখন আপনি গুগল বা এই ধরনের অন্য কোন কম্পানিতে চাকরীর জন্য আবেদন করবেন। মানে এদের ইন্টার্ভিউ প্রসেসে এরা গুগলিনেস টাকে বিশেষ গুরুত্ব দেয়। চলুন এই ব্যাবহার গুলো শিখে ধীরে ধীরে হয়ে উঠি গুগলি।

 

গুগল এর ব্যবহার যা আপনি জানেন না

 

১. গুগল ড্রাইভে নতুন ফিচার সংযোজন

আমরা যারা গুগল ড্রাইভ ব্যবহার করি তারা নিশ্চয়ই জানি যে গুগল ড্রাইভে আমরা যেকোনো ধরনের ফাইল রাখতে পারি পৃথিবীর যেকোনো জায়গা থেকে ব্যাবহার করার জন্য এবং বেশ কিছু ধরনের ফাইল তৈরি এবং সম্পাদনা করতে পারি। যেই ধরনের ফাইল আমরা সম্পাদনা করতে পারি সেইগুলো হচ্ছে –

  • টেক্সট ডকুমেন্ট
  • প্রেজেন্টেশান
  • স্প্রেডশিট
  • ড্রয়িং এবং
  • ফর্ম (অনেক লোক এখনো এটা ব্যাবহার করেন নাই)

এখন কথা হচ্ছে আপনি যদি চান যে গুগল ড্রাইভেই আমি আমার ওয়েব ডিজাইন এর কাজ করবো বা চান যে গুগল ড্রাইভেই আমি আমার পছন্দের গান গুলো রাখব এবং সেখান থেকেই আমি গানগুলো শুনবো বা এই ধরনের আরও কিছু। আপনি ইচ্ছা করলেই পারবেন। দেখুন আমি আমার গুগল ড্রাইভে কি কি কাজ করি –

গুগল এর ব্যবহার

গুগল এর ব্যবহার

বাসা আর অফিস ছাড়া অন্য কোন জায়গায় হঠাৎ কোন কোডিং করার প্রয়োজন হলে আমি চট করে একটা কোড এডিটর সেটআপ দিতে হয় না। সময় বাঁচাতে আমি আমার গুগল ড্রাইভ কে কাজে লাগাই। আবার যেহেতু আমি একজন গুগল ম্যাপ মেকার তাই Map নামের ফিচারটি এখানে এমনিতেই যুক্ত ছিল। Pixlr Editor আমি ফটোশপের মোটামুটি সব কাজ করে ফেলতে পারি।

এখন আপনিও চাইলে এই ধরনের ফিচার আপনার গুগল ড্রাইভে যুক্ত করে ব্যাবহার করতে পারেন। চলুন আমরা একটা যুক্ত করে দেখি। প্রথমেই সব ফিচারের নিচে থাকা Connect More apps এ ক্লিক করুন –

গুগল এর ব্যবহার

গুগল এর ব্যবহার

নিচের মত একটা ডায়ালগ বক্স আসবে –

গুগল এর ব্যবহার

আমরা Drive Tunes নামের app টি যুক্ত করবো। এটি একটি মিউজিক প্লেয়ার যা আমাদের গুগল ড্রাইভে থাকা গানগুলো প্লে করতে পারবে। এখন ড্রাইভ টিউনের উপর কার্সর নিয়ে গেলে দেখবেন Connect নামের বাটন দৃশ্যমান হবে। ওখানে ক্লিক করুন। ব্যাস আপনার নতুন ফিচার যুক্ত হয়ে গেছে।

 

২. Hellofax দিয়ে ফ্যাক্স পাঠান

অনেকেই ফ্যাক্স আদান প্রদান করে থাকেন অনলাইন ফ্যাক্স অ্যাপ্লিকেশান দিয়ে। কিন্তু আমার মনে হয় না ফ্যাক্স আদান প্রদান কক্ষনোই এতোটা সহজ হয়েছে যতোটা সহজ করেছে Hellofax . এটি গুগল ড্রাইভের সাথে যুক্ত এমন একটি অ্যাপ যা দিয়ে আপনি আপনার ফ্যাক্স এ সরাসরি আপনার ড্রাইভ, ড্রপবক্স, ইভারনোট বা ওয়ানড্রাইভ থেকে যেকোনো কিছু যুক্ত করতে পারবেন।

 

৩. গুগল ক্যালেন্ডার মোবাইল নোটিফিকেশন

অনেকেই হয়তো গুগল ক্যালেন্ডার ব্যবহার করেছেন। কিন্তু আমাদের দেশে এমন লোক খুজে পাওয়া মুশকিল হবে যে গুগল ক্যালেন্ডার এর এই অসাধারণ ফিচার ব্যবহার করেছেন। সম্পূর্ণ বিনামুল্যে আপনি গুগল ক্যালেন্ডারে যুক্ত করা আপনার ইভেন্টের নোটিফিকেশন পেতে পারেন তাও আবার যেকোনো ফোনে। এর জন্য https://www.google.com/calendar/ এখানে গিয়ে উপরের ডান পাশের গিয়ার আইকনে ক্লিক করে Settings এ যান। তারপর Mobile Setup আপনি আপনার নাম্বার সেট করে দিন। আর অপশন গুলো আপনি যেভাবে চান সেইভাবে করে দিন।

ব্যাস, এখন থেকে আপনি নিয়মিত নোটিফিকেশন পাবেন।

চলবে…

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *