গুগল ডকস ব্যবহার করুন অফ-লাইনেও

গুগল ডকস ব্যবহার করুন অফ-লাইনেও

আমরা সবাই জানি গুগল ডকস হচ্ছে মাইক্রোসফট অফিসের খুব ভালো বিকল্প, কিন্তু সেটা তখনই যখন আপনি অনলাইনে থাকেন। কিন্তু যখন আপনি অনলাইন থাকেন তখন?

পোস্ট এর টাইটেল থেকেই বুজতে পারছেন আজ দেখাব কিভাবে আপনি অফলাইনেও গুগল ডকসএ কাজ করতে পারবেন। এটার জন্য আপনাকে কিন্তু গুগল ক্রোম ব্যবহার করতে হবে। ছোট কিছু পদ্ধতি অনুসরন করেই আপনি গুগল ডকসে অফলাইনে কাজ করতে পারবেন। এটা আপনার ব্রাউজার এ সংরক্ষিত থাকবে এবং অনলাইনে আসার সাথে সাথে আপনার গুগল ড্রাইভে সংরক্ষন করে ফেলবে।

এই টিউটোরিয়ালে আমি আপনাদের অফলাইনে গুগল ডকস নিয়ে কাজ করার এবং গুগল ডকস সিঙ্ক্রনাইজ করার উপায় দেখাব ।

গুগল ডকস অফলাইনে ব্যবহার করার জন্য আপনার প্রয়োজন ক্রোম ব্রাউজার, এবং মনে রাখবেন যে ক্রোম সব সময় আপটুডেট রাখবেন। ক্রোম থেকে আপনি drive.google.com এ গিয়ে আপনার গুগল অ্যাকাউন্ট দিয়ে লগ ইন করুন। বাম পাশের অপশনগুলোর মধ্যে একেবারে নিচে থাকা More বাটনে ক্লিক করলে কিছু নতুন অপশন দেখতে পাবেন। এখান থেকে Offline এ ক্লিক করুন।

ডকস অফলাইন এক্টিভেট করা

দুই ধাপের একটা প্রসেস। প্রথমত Google Drive chrome app ইন্সটল করবেন। এই বাটনে ক্লিক করে ইন্সটল শুরু করুন। এই অ্যাপ আপনার কম্পিউটারে সরাসরি ইন্সটল হবে না, এটি বরং আপনার ক্রোম ওয়েব ব্রাউজারের মধ্যে ইন্সটল হবে।

এবার Enable Offline বাটনে ক্লিক করুন। এটা আপনার অফলাইন ফিচার এক্টিভেট করবে এবং ড্রাইভে থাকা ফাইল গুলো ডাউনলোড করা শুরু করবে। আপনার ড্রাইভে থাকা সকল ফাইলগুলো ডাউনলোড হতে কিছুটা সময় লাগবে। ডাউনলোড শেষ হলে আপনি সব ফাইলগুলো লোকালি দেখতে পাবেন।

 

এডিটিং অফলাইন ফাইল

যখন আপনি অনলাইনে থাকবেন তখন গুগল ড্রাইভ সাধারন যেভাবে সিঙ্ক্রনাইজ হওয়ার কথা সেভাবেই হবে। আপনাকে তখন কোন কিছু নিয়ে চিন্তা করতে হবে না।

আর যখন আপনি ইন্টারনেটে থাকবেন না তখনও লোকালি থাকা গুগল ড্রাইভের ফাইলগুলো নিয়ে আপনি কাজ করতে এবং সেভ করতে পারবেন। শুধু পার্থক্য হচ্ছে এগুলো গুগল ড্রাইভ এর অ্যাকাউন্টে সিঙ্ক্রনাইজ হওয়ার জন্য ইন্টারনেট সংযোগ প্রাপ্তির অপেক্ষায় থাকবে আর যখনই সংযোগ পাবে তখনই স্বয়ংক্রিয়ভাবে সিঙ্ক্রনাইজ হওয়া শুরু হবে। এক্ষেত্রে আপনার ইন্টারনেট স্পীড নিয়ে ভয়ের কোন কারন নেই কারন এটি শুধুমাত্র সেই ফাইলটাই সিঙ্ক্রনাইজ করবে যাতে অফলাইনে কোন পরিবর্তন সাধিত হয়েছে।

বিষয়টা তারা খুব ভালো বুঝেছেন যাদের Dropbox ব্যবহার করার অভিজ্ঞতা আছে।